দেওয়ানগঞ্জে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজ ভেঙে ইজিবাইক চালকসহ খাদে

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জের চিকাজানী ইউনিয়নের পশ্চিম ডাকাতিয়াপাড়া গ্রামে  ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজ ভেঙে ইজিবাইক চালকসহ খাদে পরার ঘটনা ঘটেছে।

আজ ৮ জুলাই (শনিবার) সকালে ইজিবাইকটি ব্রীজের উপর দিয়ে যাওয়ার সময় ব্রিজের পাশের বাস ভেঙে ইজিবাইক টি খাদে পড়ে যায়।

- Advertisement -

ইজিবাইক চালক আব্দুল্লাহ দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে জানান, এই ব্রিজ দিয়েই আমাকে প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হতে হয়। প্রতিদিনের মত আজও আমি যাত্রী নামিয়ে ব্রীজ পাড় করতেই ব্রীজ ভেঙে খাদের পানিতে পরে যায়। তবে আমি তেমন ব্যাথা পাইনি। আমার ইজিবাইক টি ক্ষতি হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে জানান, চি কাজানি ইউপির মনিয়াপারা,চরবাহাদুরাবাদ,এরান্ডাবাড়ী যাতায়াতের এক মাত্র পথ এইটি। ২০১১ সালে ব্রীজ টি নির্মাণ করা হয়। নির্মাণের সময় ব্রীজটির নিচে শক্ত পাইল না- দেওয়ায় প্রবল বন্যা পানি চাপে আশেপাশের মাটি সরে গিয়ে গর্তের সৃষ্টি হয়। যার কারণে চলাচলের সমস্যা হতে থাকে। স্থানিয়ারা নিজ উদ্ধোগে ব্রীজের দুই পাশে কাঠের সাকু তৈরি করলে সেটি ভেঙে আজ এই ঘটনা ঘটে।জনসাধারণ,মোটরসাইকেল,রিকসা,ভ্যান ,ইজিবাইক চলাচল করে আসছে এই ঝুকিপূর্ণ ব্রীজ দিয়ে।

ওই এলাকার আলীম উদ্দীন দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে জানান, ব্রীজটি নির্মাণ করার পরেই বন্যা পানিতে ব্রীজটি উল্টে গেলেও এখনো নির্মাণের কোনো ব্যবস্থা করেনি। বিগত বছর থেকেই চেয়ারম্যান মেম্বার নেতাকর্মী উপজেলা প্রশাসন সবাই দেখেই চলেছে ব্রীজটি তবে মেরামতের জন্য আজ-ও কেউ এগিয়ে আসেনি। এই পথ দিয়ে স্কুল,কলেজ,মাদ্রাসা ছাত্র-ছাত্রীসহ কয়েকটি এলাকার হাজার হাজার মানুষ ও ছোট ছোট যানবাহন চলাচল করে আসছে।

এব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এনামুল হাসান দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে জানান,এই ব্রীজের ব্যাপারে এলজিআরডি থেকে চাহিদা পাঠানো হয়েছে,অনুমোদন পাশ হয়ে আসলে ব্রীজের নির্মাণ কাজ উপজেলা এলজিআরডি করবে।

চিকাজানী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মমতাজ উদ্দিন দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে জানান, আমি এই ব্রীজের ব্যাপারে কয়েক ধাপে উপজেলা প্রশাসনকে জানিয়েছি চাহিদা পাঠিয়েছি তারা এ ব্যাপারে কোনো কর্ণপাত করেনি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি দ্রুত ব্রীজ টি যেন মেরামতের ব্যাবস্থা করা হয়।

আপনার মতামত দিন
- Advertisement -