বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, সপ্তম শ্রেণির মাদ্রাসাছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা

rape
ছবি: প্রতীকী

প্রেমের সম্পর্ক গড়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সপ্তম শ্রেণির এক মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক যুবকের বিরুদ্ধে। ওই মাদ্রাসাছাত্রী ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলেও জানা গেছে।

বরিশালের গৌরনদী উপজলোর বার্থী এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। বর্তমানে ভুক্তভোগী ছাত্রী ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

- Advertisement -

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ওই মাদরাসা ছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের প্রস্তাব দিচ্ছিল একই গ্রামের খসরু মাঝির ছেলে বাপ্পি মাঝি। গত বছরের মাঝামাঝি বাপ্পির সঙ্গে তার প্রেমের সর্ম্পক গড়ে ওঠে। মাস ছয়েক আগে বাপ্পি গোপনে প্রেমিকার বাড়িতে গিয়ে বিয়ের লোভ দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে।

৫ জানুয়ারি ওই ছাত্রীর পেটে হঠাৎ ব্যথা শুরু হয়। এক পর্যায়ে বাপ্পির মা ঝর্ণা বেগম ও ভুক্তভোগীর খালা তানিয়া বেগম তাকে একটি বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে অন্তঃসত্ত্বার বিষয়টি ধরা পড়ে। পরর্বতীতে বিষয়টি বাপ্পিকে জানানো হলে সে ভুক্তভোগীকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি দেখায়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কামাল হোসনে জানান, ভুক্তভোগীর ডাক্তারি পরক্ষিা সম্পন্ন হয়েছে। আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।

আপনার মতামত দিন
- Advertisement -