ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ ও ভিডিও, সন্তানের বাবার পরিচয় চান কিশোরী

ধর্ষণ

ধর্ষণে জন্ম নেয়া সন্তানের পিতৃত্বের দাবীতে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার সিধলা ইউনিয়নের এক নারী (১৬) গৌরীপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের গত ৬ মার্চ রাতে ভুক্তভোগী নারী প্রকৃতির ডাকে ঘর থেকে বের হলে অভিযুক্ত একই গ্রামের মোঃ হাশিম উদ্দিনের ছেলে মোঃ হাছান (২৩) বাদীর অজান্তে ঘরে লুকিয়ে থাকে।

বাদী ঘুমানোর পর জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে এবং ভিডিও ধারণ করে। তিনি আরো উল্লেখ করেন, উক্ত ঘটনার সময় বাড়িতে কেবল তার প্রতিবন্ধী বাবা ছিলেন। মায়ের চিকিৎসার জন্য দুই ভাই ঢাকায় অবস্থান করছিলেন। এসময় ধর্ষক হাছান হুমকি দেয় কাউকে বিষয়টি জানালে ভিডিও ভাইরাল করে দেয়া হবে। এই ভয়ে ভুক্তভোগী নারী বিষয়টি গোপন করেন। পরবর্তীতে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে একাধিকার তাকে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত হাছান।

- Advertisement -

এতে তিনি গর্ভবতী হয়ে পড়েন। চিকিৎসার পর মা ও ভাইয়েরা বাড়ীতে ফিরে এসে বিষয়টি জানতে পারেন। এসময় হাছানকে বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করলে সে তার বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক বিয়ে করেন কিন্তু এসময় কোন বিবাহ রেজিষ্ট্রি করা হয় নাই।

বিবাহ রেজিষ্ট্রির জন্য ভুক্তভোগী নারী ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে চাপ প্রয়োগ করলে হাছান ওই নারীকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। এরপর থেকে বাবার বাড়িতে অবস্থান করেন তিনি। গত ২৮ জানুয়ারী ২০২১ ইং ভুক্তভোগী নারী একটি কন্যা সন্তান জন্ম দেন। সন্তানের জন্মের পরও অভিযুক্ত হাছান কোন ধরণের খোঁজ-খবর নেয়নি।

মঙ্গলবার (৬ জুলাই) ভুক্তভোগী নারী ধর্ষণের অভিযোগ ও সন্তানের পিতৃত্বের দাবীতে গৌরীপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০ (সংশোধনী/৩) এর ৯(১) এর ধারায় মামলা দায়ের করেন।গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী জানান, অভিযুক্ত হাছানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আপনার মতামত দিন
- Advertisement -