মাদারগঞ্জে সেতু না থাকায় ঝুঁকি নিয়ে বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপার

বাঁশের সাঁকো

জামালপুরের মাদারগঞ্জে একটি পাকা সেতুর অভাবে ৭ গ্রামের মানুষকে প্রায় ৩ যুগ ধরে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে ওই এলাকার মানুষের চলাচলে দুর্ভোগ চরমে পৌঁছে।

জানা গেছে, মাদারগঞ্জ পৌরসভার গুরুত্বপূর্ণ গাবের গ্রাম বাজারের পাশের খালের ওপর দীর্ঘদিন ধরে একটি পাকা সেতুর দাবি জানিয়ে আসছে এলাকাবাসী। উপজেলায় অনেক কম গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পাকা সেতু নির্মাণ হলেও অজ্ঞাত কারণে ওই স্থানে পাকা সেতু নির্মাণ হচ্ছে না। ফলে প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে ৬ থেকে ৭ মাস উপজেলার সুখনগরী, তারতাপাড়া, খিলকাটি, ফুলজোড়সহ অন্তত ৭ গ্রামের লোকজনকে প্রায় ৬০ মিটার দীর্ঘ বাঁশের সাঁকো তৈরি করে তার ওপর দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হতে হয়।

- Advertisement -

ভুক্তভোগীরা জানান, গাবেরগ্রাম বাজারে আসা লোকজনকে অনেক সময় ভারি মালামালসহ ঝুঁকি নিয়ে ওই সাঁকো পার হতে হয়। এতে দুর্ঘটনায় লোকজনের হতাহত হওয়ার ঘটনাও ঘটে।

বালিজুড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে জানান, ওই স্থানে পাকা সেতু না হওয়ায় আড়াই কিলোমিটারের স্থলে ৭ কিলোমিটার ঘুরে বালিজুড়ী ইউনিয়ন পরিষদে হত দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ বিভিন্ন মালামাল পরিবহন করতে হয়। এতে দ্বিগুণেরও বেশি পরিবহন ভাড়া দিতে হয়। তিনি বলেন, এবারও শুনেছি ব্রিজ নির্মাণের এস্টিমেট হচ্ছে, কিন্তু হবে কিনা তা জানি না।

মাদারগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে জানান, ওই স্থানে ৭০ মিটার দীর্ঘ একটি সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা আছে। ইতিমধ্যে মাটি পরীক্ষা করা হয়েছে। বর্তমানে ডিজাইনের কাজ চলছে। ডিজাইনের পরে টেন্ডার হতে পারে।

আপনার মতামত দিন
- Advertisement -