যে তিন বিবেচনায় পরীমনিকে জামিন দিল আদালত

পরীমনি

মাদক মামলায় গ্রেপ্তারের পর আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনিকে জামিন দিয়েছে আদালত। ঢাকা মহানগর দায়রা জজ এ কে এম ইমরুল কায়েশ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। পরীমনিকে নারী, শারীরিক অসুস্থতা এবং অভিনেত্রী, এই তিন বিবেচনায় জামিন দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ ইমরুল কায়েশ শুনানি শেষে এসব বিবেচনায় তার জামিন মঞ্জুর করেন। আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আলোচিত এই চিত্রনায়িকা গত ৪ আগস্ট গ্রেপ্তার হওয়ার পর তিন দফা রিমান্ড শেষে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন। মঙ্গলবার পরীমনির পক্ষে আদালতে জামিন শুনানি করেন আইনজীবী মো. মজিবুর রহমান। তাকে সহায়তা করেন নিলাঞ্জনা রিফাত সুরভীসহ আরও কয়েক জন আইনজীবী। শুনানিতে আইনজীবীরা বলেন, পরীমনিকে পর পর তিনবার রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। তিনি কারাগারে থেকে অসুস্থ হয়ে যাচ্ছেন। স্বনামধন্য এই চিত্রনায়িকার ১০টি সিনেমার শুটিং আটকে আছে। মানবিক বিবেচনায় পরীমনিকে জামিনে মুক্তি দেয়ার অনুরোধ জানান আইনজীবীরা।

- Advertisement -

রাষ্ট্রপক্ষে জামিনের বিরোধিতা করেন মহানগর আদালতের প্রধান পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু ও অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল। শুনানিতে তারা বলেন, পরীমনির বাসা থেকে ভয়ংকর মাদক এলএসডি ও চার গ্রাম আইস উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি মাদকের আসর বসাতেন, নিজে মাদক গ্রহণ করতেন। এজন্য তাকে জামিন দেয়া বিপজ্জনক। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার আগ পর্যন্ত পরীমনিকে মুক্তির আদেশ দেন।

এর আগে ২২ আগস্ট পরীমনির আইনজীবী ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে জামিন আবেদন করেন। আদালত শুনানির জন্য ১৩ সেপ্টেম্বর তারিখ দেয়। পরে পরীমনির আইনজীবীরা হাইকোর্টে গেলে দ্রুত জামিন আবেদন নিষ্পত্তির আদেশ দেয় আদালত। এরপর বিচারিক আদালতের বিচারক ৩১ আগস্ট নতুন তারিখ রাখেন। গত ৪ আগস্ট রাতে পরীমনির বনানীর বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাবের একটি দল। সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, মদের বোতলসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য জব্দের দাবি করে বাহিনীটি।

আপনার মতামত দিন
- Advertisement -