সম্মেলনে যাওয়া হবে না ছাত্রলীগ নেতা মুকুলের

student league
হাঁসপাতালে আহত ছাত্রলীগ নেতা মকুল।

আগামী কাল জামালপুর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনকে ঘিরে উৎসরের আমেজ বিরাজ করছে জেলার সর্বত্র। বিভিন্ন উপজেলাসহ পৌর ইউনিট গুলিতে উৎসবের আমেজ দেখা গেছে। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মাঝে প্রাণ চঞ্চলতা ফিরে এসেছে। জামালপুর সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজ মাঠে সকাল ১১ ঘটিকায় জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকসহ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানকসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন বলে সংগঠন সূত্রে জানা গেছে।

জেলার ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মীদের মাঝে যখন প্রাণচঞ্চলতা এবং উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে তখন হাসপাতালের বেডে শুয়ে দিন পার করছে ছাত্রলীগের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার হাতিভাঙ্গা ইউনিয়নের যুগ্ম আহবায়ক রাকিবুল হাসান মুকুল। প্রাণপ্রিয় সংগঠনের সম্মেলনে অংশগ্রহণ করতে পারবে না এ কথা ভেবে ভেবে তার দুচোখ দিয়ে অশ্রু গড়িয়ে পরতে দেখা গেছে। সংগঠনের জন্য সবসময় নিবেদিত ছিল সে ।

- Advertisement -

মুকুলের পারিবারিক এবং সংগঠন সূত্রে জানা যায়, গত ১৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন শেষে ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল হাসান মুকুল সাংগঠনিক কার্যক্রম শেষ করে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রিয়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক বিজলের অফিসে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে আলোচনা শেষে সন্ধা ৭ টার দিকে নিজ বাড়িতে ফেরার জন্য বাজারে অটোর জন্য অপেক্ষা করছিল। এ সময় হাতীভাংগা  ইউনিয়নের সদ্যসমাপ্ত ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থীর কতিপয় দুর্বৃত্ত মুকুলকে রড,লাঠি,পাইপ দিয়ে হামলা করে। এসময় মকুল মারাত্মক আহত হয়। এরপর স্থানীয় লোকজন সাথে সাথে মুকুলকে উদ্ধার করে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তাকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করা  হয়। সে বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন আছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, মকুল মেরুদণ্ডে মারাত্মক আঘাত প্রাপ্ত হয়েছে। তাকে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিতে হবে।

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোহেল রানা বলেন, হাতীভাঙ্গা ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীর লোকেরা বিজয়ী হয়ে নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ করায় ছাত্রলীগের ত্যাগী নেতা মুকুলের উপর মর্মান্তিক হামলা চালিয়েছে এই ঘটনায় আমি তীব্র নিন্দা জানাই এবং বাকি আসামিদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মহব্বত কবীর জানান, দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানায় ৯ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলায় একজন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে ।

আপনার মতামত দিন
- Advertisement -