সরিষাবাড়ীতে কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত দুটি সেতু কাজে আসছে না সাধারণের

Jamalpur

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের গাছবয়ড়া গ্রামে ঝিনাই নদীর পাড় ঘেঁষে যাতায়াতে জনদুর্ভোগ নিরসনে প্রায় কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছে সুইসগেটসহ দুটি সেতু। সেতু নির্মাণ করা হলেও সংযোগ সড়ক না থাকায় সেতু ও সুইসগেট জনসাধারণের কোনো কাজে লাগছে না। শুকনো ও বন্যা এ দুই মৌসুমে এলাকাবাসী ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা বিলের ফসলি জমির সরু আইল দিয়েই যাতায়াত করছেন। এ নিয়ে স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা দেখভাল করছেন না।

জানা যায়, সরিষাবাড়ী উপজেলার গাছবয়ড়া গ্রাম এলাকায় জাইকা বেড়িবাঁধ প্রকল্প ২০১৪-১৫ সালে ঝিনাই নদীর বেড়িবাঁধে নির্মাণ করা হয় একটি সুইসগেট। বন্যার কবল থেকে কয়েকটি গ্রামসহ পুরো এলাকার বাসিন্দাদের রক্ষায় গ্রাম রক্ষা বাঁধ সড়কে সুইসগেট নির্মিত হলেও বেড়িবাঁধে সড়ক নেই। বেড়িবাঁধ সংযুক্ত বিলের পশ্চিম পাশে চার গ্রামের হাজার হাজার মানুষের যাতায়াতের কোনো সড়ক না থাকায় একশ মিটার দূরে বিলের মধ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর সেতু-কালভার্ট কর্মসূচির আওতায় ২০১৭-১৮ শেষ অর্থবছরে সেতু দুটি নির্মাণ করে। সেতু দুটির পূর্বপাড় ঘেঁষে পোগলদিঘা ইউনিয়ন পরিষদ হয়ে উপজেলার সংযুক্ত সড়কটিও বন্যায় ভেঙে যাওয়ায় যাতায়াতের অযোগ্য হয়ে পড়ে। সেতু দুটি নির্মাণ করা হলেও সংযোগ সড়ক না থাকায় যাতায়াতে কোনো কাজে আসছে না। বন্যার মৌসুমে নৌকায় এবং শুকনো মৌসুমে দীর্ঘদিন ধরে পায়ে হেঁটে বিলের মাঝ দিয়ে যাতায়াত করে আসছে গ্রামবাসীসহ স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা।

- Advertisement -

পোঘলদিগা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সামস উদ্দিন দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে বলেন, গ্রাম রক্ষা বেড়িবাঁধটি বন্যায় ভেঙে যাওয়ায় সড়কের কোনো চিহ্ন নেই। নতুন করে দুটি সড়কই নির্মাণ করতে হবে। দুটি সেতুর সাথে সড়ক সংযোগ হলে এলাকার মানুষের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

সরিষাবাড়ী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে জানান, সেতুর সংযোগ সড়ক নির্মাণে বরাদ্দের প্রস্তাবনা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন পেলেই সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিহাব উদ্দিন আহম্মেদ ওয়ানগঞ্জ নিউজকে বলেন, পোগলদিঘা ইউনিয়নের গাছবয়ড়া এলাকায় নির্মাণ করা দুটি সেতুর সঙ্গে সংযোগ সড়কের ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মতামত দিন
- Advertisement -