‘হয় সে আমাকে বিয়ে করবে, না হলে এখানেই আমার মৃত্যু হবে’

বিয়ে

মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলার নহাটা ইউনিয়নের মোবারকপুর গ্রামের আইয়ুব মোল্যা চৌকিদারের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে দশম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রী অনশন শুরু করেছে। আজ বুধবার (১৪ এপ্রিল) সকালে ভুক্তভোগী ওই মেয়ে জানায়, আইয়ুব চৌকিদারের ছোট ছেলে সোহান মোল্যার সঙ্গে দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক। বিয়ের প্রলোভনে সে নানা সময় শারীরিক সম্পর্ক করতে বাধ্যও করেছে। এখন সে বিয়ে করতে রাজি হচ্ছে না। তাই বাধ্য হয়ে প্রেমিক সোহান মোল্যার বাড়িতে মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) থেকে অনশন শুরু করেছি।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী জানান, রোববার রাতে প্রেমিক সোহান মোল্লা তার কাছে গেলে প্রতিবেশীরা তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। এই ঘটনা জানার পর কেউ তাকে বিয়ে করবে না। এর আগেও বিভিন্ন জায়গা থেকে বিয়ের কথা চললেও সোহান মোল্লা বিয়ে ভেঙে দেয়। ওই ছাত্রী বলেন, এ অবস্থায় সে বিয়ে না করলে আমার মরণ ছাড়া কোনো উপায় নেই। আমি তার বাড়িতে উঠেছি, হয় সে আমাকে বিয়ে করবে, না হলে এখানেই আমার মৃত্যু হবে।

- Advertisement -

ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীর মা বলেন, এ ঘটনার পর কী করে মেয়েকে বিয়ে দেব? তাই পছন্দের ছেলের (সোহান) সঙ্গেই তার মেয়ের বিয়ে হোক এটাই চাই। এ জন্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি। তবে ছেলে ও তার পরিবারের কাউকে বাড়িতে না পাওয়ায় এ বিষয়ে কারও বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

আপনার মতামত দিন
- Advertisement -